Thursday , August 22 2019
Home / জেলার খবর /   চাঁপাইনবাবগঞ্জে এবার আম পাড়ার সময়সীমা বেঁধে দেয়নি প্রশাসন
  চাঁপাইনবাবগঞ্জে এবার আম পাড়ার সময়সীমা বেঁধে দেয়নি প্রশাসন
  চাঁপাইনবাবগঞ্জে এবার আম পাড়ার সময়সীমা বেঁধে দেয়নি প্রশাসন

  চাঁপাইনবাবগঞ্জে এবার আম পাড়ার সময়সীমা বেঁধে দেয়নি প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিনিধি :
চলতি বছর  চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ৫ উপজেলায় ৩১ হাজার ৮২০ হেক্টর আমবাগনে প্রায় পৌনে ৩ লাখ মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। এ বছর বাগান পরিচর্যায় এক ধরনের অনীহা ছিল আমচাষীদের। কিন্তু আবহাওয়া গতবছরের তুলনায় অনেকটা অনুকূলে থাকায় এবার আমের উৎপাদন ভালো হবে বলে আশা করছেন আমচাষীরা। সেই সাথে রাসায়নিক সার দিয়ে আম পাকানো ঠেকাতে প্রশাসনের নজরদারির পাশাপাশি আম পাড়ার সময়সীমা না বেঁধে দেয়ায় খুশি আমচাষীরা।

আম বাগানগুলোতে এ বছর কীটনাশকের ব্যবহার অর্ধেকে নেমে এসেছে। বাগানে পাহারা বসানোর জন্য ঘর মেরামতের কাজ চলছে। যেসব গাছগুলোর ডালপালায় অধিক আম এসেছে সেগুলোয় ঠেকা দেয়ার কাজ চলছে। এবারে আমবাগানগুলোর দাম নেই বললেই চলে। এবছর বাগানগুলোর ক্রেতা নেই। তাই আমচাষীরা বাড়তি পরিচর্যা করছে না। এছাড়াও স¤প্রতি হাইকোর্টের একটি আদেশকে কেন্দ্র করে আমচাষীরা রায়টি সম্পর্কে ভালো জ্ঞান না পাওয়ায় অনেকটা উদাসীন ছিল। এবছর আবহাওয়া এখন পর্যন্ত অনেকটা অনুকূলে থাকায় এবং পরিচর্যা খরচ অন্য বছরের তুলনায় অর্ধেক হওয়ায় লাভের আশা করছেন আমচাষীরা।

গুটি জাতের আম গোপালভোগ জুন মাসের প্রথম সপ্তাহের পর খিরসাপাত জাতের আম বাজারে আসবে। এদিকে আমের বাজার ও বাগানগুলো মনিটরিং শুরু করেছে জেলা প্রশাসন। এবার যেন অপরিপক্ক আম পেড়ে রাসায়নিক দিয়ে পাকাতে না পারে সেজন্য নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। গত ২ বছর আম পাড়ার সময়সীমা বেঁধে দেয়ায় ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তাপমাত্রা ও আবহাওয়াজনিত কারণে নির্দিষ্ট সময়ের অনেক আগেই আম পেকে যায়। প্রশাসন গত ২ বছর আম পাড়ার সময় বেঁধে দেয়ায় ব্যাপক হারে আম পেকে যাওয়ায় লোকসানে পড়েছিলেন আম ব্যবসায়ীরা।

কৃষকদের আতঙ্কিত না হয়ে কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী আম ও বাগানের পরিচর্যা করার আহবান জানিয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত¡ গবেষণা কেন্দ্র। আদালতের নির্দেশক্রমে ক্ষতিকর রাসায়নিক দিয়ে আম পাকানোয় নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। কিছুদিন আগে আম গবেষণা কেন্দ্রের বৈজ্ঞানিক, কৃষি বিভাগসহ আম সংশ্লিষ্টদের নিয়ে আম পাড়ার বিষয়ে একটি সভাও করা হয়েছে।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে আম পাড়ার সময়সীমা নির্ধারণ না করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এ বছর ৫ উপজেলায় ৩১ হাজার ৮২০ হেক্টর আমবাগনে প্রায় পৌনে ৩ লাখ মেট্রিক টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে।

About Tutul Rabiul

Check Also

ডোমেন সিং পুকুর রক্ষার দাবিতে জনসভা অনুষ্ঠিত

সংবাদটি পড়া হয়েছে : 70 নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আজাইপুর, আরামবাগ এলাকার প্রাণ ঐতিহাসিক ডোমেন সিং পুকুর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!