Breaking News
Home / শিক্ষা / প্রাথমিক স্কুল শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে অধিদপ্তর
প্রাথমিক স্কুল শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে অধিদপ্তর
প্রাথমিক স্কুল শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে অধিদপ্তর

প্রাথমিক স্কুল শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে অধিদপ্তর

নবাববার্তা ডেস্ক

প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষার্থী ভর্তির হার বাড়ছে না। দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশপাশি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমে যাচ্ছে। দেশের সাড়ে ছয়শো প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৫০ এর নীচে নেমে এসেছে। এরমধ্যে ২৫টি বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২০ জনেরও কম। ওইসব স্কুলের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়গুলোর শিক্ষকদের হোম ভিজিটে অনীহা, অত্যন্ত দুর্বল পরিদর্শন এবং সংশ্লিষ্ট এলাকার শিক্ষা কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনে অবহেলার কারণে এসব বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তির হার কমে গেছে বলে চিহ্নিত করা হয়েছে। ছাত্র-ছাত্রী ভর্তির হার বাড়ানোর না গেলে এসব বিদ্যালয়কে আশপাশের বিদ্যালয়ের সাথে একীভূত হবে এবং ব্যর্থতার দায়ে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক, ইনস্ট্রাক্টর এমনকি শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। সেইসাথে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা কেন কমে গেল এবং ছাত্র-ছাত্রী বাড়াতে কি ধরনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে সেসম্পর্কে সংশ্লিষ্টদের কাছে বিস্তারিত প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছে।

ওই স্কুলগুলোর মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য নওগাঁর ধামুড়হাট উপজেলার শেখ রাসেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খুলনার ডুমুরিয়ার ময়নাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাগেরহাট সদরের হালিশহর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মানিকগঞ্জের হরিরামপুর আব্দুল কাদের শিকদার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নারায়নগঞ্জ রুপগঞ্জের কামতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোপালগঞ্জ সদরের বিল বাজুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নোয়াখালী সদরের চন্দ্র ভল্লবপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়, নোয়াখালীর হাতিয়ার টাংকির বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ফেনীর ছাগলনাইয়ার মধ্য নিচন্তা আনোয়ার হোসেন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাঙ্গামাটির বারকল ভাইবোনছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, লাঙ্গাডু গোলটিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাঘাইছড়ি উলূছড়ি রাবার প্রজেক্ট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাজস্থলী ইয়ংম্রংপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একই উপজেলার বড়পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বান্দরবান সদরের রোয়াজা পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বরিশাল সদরের বরিশাল পলিটেকনিক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার রহমান-মনোয়ারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বরগুনার বামনা বড়যাদবপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভোলার তজুমুদ্দীন ঘোষের হাওলাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার অর্জুনকুমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, একই উপজেলার লিয়নকালিজুরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,ঠাকুরগাঁও সদরের চামেশ্বরী ঈদগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পিরগঞ্জ চন্দ্রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ঘোড়াঘাট গুয়াগাছি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের বলাহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রমুখ।

সুত্র-বাংলাদেশ জার্নাল

About Tutul Rabiul

Check Also

হৃদরোগ এড়াতে ডাঃ দেবি শেঠির কিছু চমৎকার পরামর্শ

হৃদরোগ এড়াতে ডাঃ দেবি শেঠির কিছু চমৎকার পরামর্শ

সংবাদটি পড়া হয়েছে : 67 নবাববার্তা ডেক্সঃ দেবি শেঠি ভারতের বিখ্যাত চিকিৎসক। বলা হয়, বিশ্বের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!