Breaking News
Home / জেলার খবর / শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজে নবীন বরণ
শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজে নবীন বরণ
শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজে নবীন বরণ

শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজে নবীন বরণ

শহর প্রতিবেদক :

চাঁপাইনবাবগঞ্জের অন্যতম বিদ্যাপিঠ শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজের মনি উকিল স্মৃতি মিলনায়তনে অনার্স ১ম বর্ষ নবীন বরণ ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩ ফেব্রুয়ারি রোববার অধ্যক্ষ মো. আনোয়ারুল ইসলামের সভাপতিত্বে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. দাউদ হোসেন ও নবাবগঞ্জ সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ
প্রফেসর মনোয়ারা খাতুন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মমতাজ বেগম, শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও দৈনিক গৌড় বাংলা সম্পাদক হাসিব
হোসেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শফিকুল আলম ভোতা, প্রাত্তন শিক্ষক আমিনুল ইসলাম সেন্টু, উপাধ্যক্ষ শরিফুল আলম প্রমুখ।

নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মো. দাউদ হোসেন বলেন-শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজের সাথে আমার একটা আত্মার সম্পর্ক রয়েছে। ২১-২২ বছর আগে ১৯৯৭ সালে আমি নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজে বোটানির প্রভাষক পদে যোগদান করি। সে সময় আমি এ কলেজ মাঠে ক্রিকেট খেলা দেখতে আসতাম। আমার একটা বদ অভ্যাস আছে, সকালে এসেই কলেজ গেটে আরজুর দোকানে এককাপ চা খায়। এ কলেজের লেখাপড়ার মান অনেক ভাল। সামনে একটা বিরাট মার্কেট, ফুল বাগান আর শিক্ষকদের যে যোগ্যতা তা যথেষ্ট। কোন অংশে কেউ কম না। আমি শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করছি।

শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজের সাবেক শিক্ষক ও গভর্নিং বডির সদস্য হাসিব হোসেন বলেন-আমরা প্রতি বছর এখানে নবীণ-বরণ এর আয়োজন করে থাকি। নবীণকে আমারা বরণ করে নিয়ে তাঁর দায়িত্ব এবং কর্তব্য সাথে সাথে আগামী দিনের এগিয়ে যাবার যে প্রেরণা, সে প্রেরণা আমরা এখান থেকে দেবার চেষ্টা করি। তিনি আরো বলেন-আমরা একে-উপরের সাথে যোগাযোগ ও সম্পর্কের মধ্য দিয়ে নিজেদের উন্নয়ন এবং লেখাপড়ার মানবৃদ্ধি করব। এখানে লেখাপড়ার জন্য কলেজ কর্তৃপক্ষ বিশেষ করে সুযোগ্য অধ্যক্ষ মো. আনোয়ারুল ইসলাম কলেজের উন্নয়নের লক্ষে বিভিন্নভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। কলেজের প্রাঙ্গণকে ফুলে এবং বিভিন্ন ধরণের গাছের সমারোহে ভরিয়ে দিয়ে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলেছেন। এ-ছাড়াও তিনি ও সকল শিক্ষক মিলে প্রতি শুক্রবার মহত কাজ ফকির-গরীব অসহায়দের দুপুরের খাবার দিচ্ছেন।
হাসিব হোসেন বলেন-শাহনেয়ামতুল্লাহ কলেজে যে লাইব্রেরী আছে সেটাকে আরো উন্নত করার চেষ্টা করছেন।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন কলেজের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রীসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত
ছিলেন।

About Tutul Rabiul

Check Also

৬নং রানিহাটী ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকায় খাবার পানির সংকট

৬নং রানিহাটী ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকায় খাবার পানির সংকট

সংবাদটি পড়া হয়েছে : 29 জারিফ হোসেনঃ চাঁপাই নবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় অবস্থিত ৬নং রানিহাটী ইউনিয়নের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!