Home / ফিচার / আজ শহীদ ড. জোহা দিবস
আজ শহীদ ড. জোহা দিবস
শহীদ ড. জোহা

আজ শহীদ ড. জোহা দিবস

নবাববার্তা ডেস্কঃ

আজ ১৮ ফেব্রুয়ারি। ড. শহীদ শামসুজ্জোহা দিবস। ১৯৬৯ সালের এ দিনে পাক হানাদার বাহিনীর গুলিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইন গেটে ড. জোহা শহীদ হন। তিনিই প্রথম বাঙালি শহীদ বুদ্ধিজীবী। তার আগে কোনো বাঙালি বুদ্ধিজীবী এদেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনে শহীদ হওয়ার উদাহরণ নেই।

ড. জোহার আত্মদান সামরিক শাসক আইয়ুব শাহীর পতনকে ত্বরান্বিত করেছিল। চলমান গণআন্দোলন রূপ নিয়েছিল গণঅভুত্থানে। ড. জোহা হত্যার খবর বিদ্যুৎবেগে ছড়িয়ে পড়লে তৎকালীন সমগ্র পূর্ব পাকিস্তানে সর্বস্তরের জনতা আইয়ুব শাহীর সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠে।

ড. জোহা ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় তৎকালীন প্রক্টর ও রসায়ন বিভাগের রিডার। আগরতলা ষড়যন্ত্র মামলা এবং সার্জেন্ট জহুরুল হক হত্যার প্রতিবাদে সারাদেশের ন্যায় উত্তাল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। ১৮ ফেব্রুয়ারি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে মিছিল করার চেষ্টা করে। আইয়ুব শাহীর স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদের আগলে রেখেছিলেন ড. জোহা। নিজ ছাত্রদের জীবন রক্ষায় অকুতোভয় এ শিক্ষক পাক হানাদার বাহিনীর বন্দুকের সামনে দাঁড়ান। ছাত্রদের রক্ষায় এগিয়ে আসায় পাক বাহিনী তাকে গুলি করে হত্যা করে। সেদিন থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে এ দিনটি শিক্ষক দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

প্রতিবছরের ন্যায় এবারও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ড. জোহার স্মরণে দিনব্যাপী বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

দিবসের কর্মসূচিতে রয়েছে, সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে কালোপতাকা উত্তোলন, সকাল ৭টায় ড. জোহার মাজার ও জোহা স্মৃতিফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবে প্রশাসন। এরপর সকাল সোয়া ৭টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ, আবাসিক হল, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সমিতি ও সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। দিবসটি উপলক্ষে এদিন সকাল সাড়ে ৮টায় রাবি অফিসার সমিতি কার্যালয়ে আলোচনা সভা আয়োজন করছে।

সকাল ১০টায় শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সিনেট ভবনে জোহা স্মারক বক্তৃতা অনুষ্ঠিত হবে। এতে বক্তব্য রাখবেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক শ্যামল চক্রবর্তী। এরপর বাদ জোহর রাবি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে কোরআনখানি ও বিশেষ মোনাজাত এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে দোয়া মাহফিল ও প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করা হবে।

এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত দর্শকদের জন্য খোলা থাকবে। এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে ১৩ মার্চ বিকেল ৪টায় কাজী নজরুল ইসলাম মিলনায়তনে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নীলফামারী-২ আসনের সাংসদ আসাদুজ্জামান নূর।

About Tutul Rabiul

Check Also

৭ই মার্চঃ বাঙালি জাতির চিরন্তন অনুপ্রেরণা

৭ই মার্চঃ বাঙালি জাতির চিরন্তন অনুপ্রেরণা

সংবাদটি পড়া হয়েছে : 130 নবাববার্তা ডেস্কঃ সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা এই বাংলাদেশের মানুষের সকল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!